প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

স্যুটিং/চিত্রগ্রহনের

প্রত্নসহলে স্যুটিং/চিত্রগ্রহণের জন্য আবেদন

 

বরাবর : মহাপরিচালক

           প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর

           আগারগাঁও প্রশাসনিক এলাকা

          এফ৪/এ,শেরেবাংলা নগর, ঢাকা-১২০৭ ।

 

বিষয় : স্যুটিং/চিত্রগ্রহনের জন্য আবেদন।

 

মহোদয়,

 

আমি/ আমরা --------------------------------------ইং তারিখ --------------------ঘটিকা থেকে--------ঘটিকা পর্যন্ত প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের আওতাধীন ----------------------------প্রত্নসহলে স্যুটিং/চিত্রগ্রহণ করতে ইচ্ছুক ।

 

 

১।

আবেদনকারী ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানা :

 

২।

চাহিদাকৃত প্রত্নসহলের নাম :

 

৩।

অংশগ্রহণকারী জনবলের সংখ্যা :

 

৪।

কোন বিদেশী অতিথি থাকবেন কি না ? যদি থাকেন তবে/ঠিকানা ও পাসপোর্ট নং :

 

৫।

জমাকৃত ব্যাংক ড্রাফট/পে অর্ডার নমবর :----------------------------- তারিখ:-----------------------

টাকার পরিমাণ:--------------------------------- ব্যাংকের নাম :------------------------- শাখা:

 

 

আমি/আমরা অংগীকার করছি যে, এই আবেদনের পত্রের ২য় পৃষ্ঠায় যে সমসত্ম নির্দেশাবলী মুদ্রিত আছে তা মেনে চলব ।

 

উল্লিখিত তারিখ ও  সময়ে আপনার দপ্তরের আওতাধীন প্রত্নসহলে স্যুটিং/চিত্রগ্রহণের অনুমতি প্রদান করার জন্য অনুরোধ করা হলো ।

 

 

তারিখ :------------------- ইং

 

 

(প্রতিষ্ঠানের সীল মোহর)

স্বাক্ষর :

পুরো নাম:

মোবাইল :

ফোন :

ই-মেইল:

 

 

শর্তাবলী

 

 

(ক) সরকারি বিধি অনুযায়ী প্রস্তাবিত অনুষ্ঠান ধারনের জন্য প্রতি ঘন্টায় ১,০০০/-(এক হাজার) টাকা হারে ফি প্রদান করতে হবে।

(খ)  অনুষ্ঠান চলাকালে কোন সরকারি সম্পদ ও পুরাকীর্তির ক্ষতিসাধন করা যাবে না।

(গ)  দেশের বা সরকারের ভাবাদর্শ ÿুন্ন হয় অথবা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন কিছু করা যাবে না।

(ঘ)  বিধি বহির্ভূত কোন কাজ করা যাবে না।

(ঙ)  অনুষ্ঠান চলাকালে পুরাকীর্তি কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর কর্তৃক নির্ধারিত ক্ষতিপূরণসহ গৃহীত

অন্যান্য ব্যবসহা অবশ্যই মানতে হবে।

(চ)  অনুষ্ঠান চলাকালে উক্ত সহানের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা প্রদান করতে হবে।

(ছ)  প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রবেশ মূল্য দিতে হবে।

(জ) বালিয়াটি জমিদার বাড়ীর অভ্যন্তরে মঞ্চ তৈরী এবং কোন খাবার রান্না করা যাবে না।

(ঝ)  সামাজিক ও নৈতিকতার পরিপন্থী কোন কাজ করা যাবে না।

(ঞ) নিজস্ব্ তত্ত্বাবধায়নে ও খরচে বিদ্যুতায়নের ব্যবসহা করতে হবে।

(ট) দর্শকদের পরিদর্শনে বিঘ্ন সৃষ্টি করা যাবে না।

(ঠ)  সংরক্ষিত প্রাচীণ ইমারতের দেয়ালে পেরেক (তারকাটা) লাগানো যাবে না।

(ড)  রাজস্ব ফি এর উপর ১৫% ভ্যাট প্রদান করতে হবে।

(ঢ)  স্যুটিংয়ের জন্য কোন সামিয়ানা টানানো এবং কোন স্থাপনা তৈরী করা যাবে না।

(ণ)  বালিয়াটি জমিদার বাড়ীর ইমারতসমূহের ভিতর, বারান্দায় এবং ছাদে কোন প্রকার স্যুটিং করা যাবে না।

(ত) নির্ধারিত ফি প্রদানের পর চিত্রায়ণ শুরু করতে হবে।

(থ) পুরাকীর্তির অভ্যন্তরে প্রবেশের ক্ষেত্রে সকলকে প্রবেশ টিকিট সংগ্রহ করতে হবে।


Share with :
Facebook Facebook