প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ ডিসেম্বর ২০১৭

ইনোভেশন কার্যক্রম

অধিদপ্তরের ইনোভেশন টিমের কার্যক্রম

(নভেম্বর ৩০, ২০১৭  পর্যন্ত)

১.

অধিদপ্তরের ওয়েব সাইটে আইডিয়া বক্স তৈরী করা হয়েছে । নিয়মিত হালনাগাদ করা হচ্ছে ।

২.

বিভিন্ন জাদুঘরের প্রবেশমুখে ভিজিটরদের কাছ থেকে বিভিন্ন আইডিয়া গ্রহণ করার জন্য ফিডব্যাক বক্স স্থাপন করা হয়েছে ।

৩.

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যোগাযোগ অব্যাহত রাখার জন্য Face book এ page খোলা হয়েছে এবং নিয়মিত হালনাগাদ করা হচ্ছে ।

৪.

ওয়েব সাইট নিয়মিত হালনাগাদ করা হচ্ছে ।

৫.

দেশের প্রত্নসম্পদের অধিক প্রচারণায় লিফলেট, স্টীকার, লেখনি ইত্যাদির ব্যবহার এর উদ্যোগ গ্রহণের কার্যক্রম চলমান ।

৬.

অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের ইনকামিং ও আউট গোয়িং মেশিনের কার্যক্রম সম্পূর্ণভাবে চালু হয়েছে ।

৭.

স্যুটিং ও অডিটরিয়াম ভাড়ার  আবেদন অন লাইনে চালু করণ।

৮.

অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ই-ফাইলিং প্রশিক্ষণের ব্যাপারে কার্যক্রম উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে ।

৯.

প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক ই-ফাইলিং কার্যক্রমের জন্য অধিদপ্তরের শাখা সমূহের কম্পিউটারের LAN সুবিধা প্রদান এবং সকল আঞ্চলিক অফিস সমূহের সাথে প্রধান দপ্তরের video conference এর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ।

১০.

প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন যেমন-পাহাড়পুর, বাগেরহাট গ্রুপ অব মনুমেন্টস, মহাস্থান, ময়নামতি, কুঠিবাড়ি, লালবাগকেল্লা, পানামসিটি এর উপর পরীক্ষামূলক প্রামাণ্যচিত্র তৈরীর উদ্যোগ গ্রহণ হয়েছে  ।

১১.

প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের বিভিন্ন জাদুঘরে সংরক্ষিত প্রত্নসম্পদের ডিজিটাল ইনভেন্টরীর (ডাটাবেজ সফ্টওয়ার) তৈরীর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে  ।

১২.

দেশের বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিষয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের প্রত্নতাত্ত্বিক খনন, সংস্কার-সংরক্ষণ কাজে অংশগ্রহণে আগ্রহ ও সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের দেশের প্রত্নসম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করার ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে ।

১৩.

বিসিসি কর্তৃক নির্ধারিত  অধিদপ্তরের সরকারী  ই-মেইল  আইডি অধিদপ্তরের যাবতীয় প্রশাসনিক কার্যক্রমে সম্পন্ন হয়েছে।

১৪.

অধিদপ্তরের আলোকচিত্র শাখায় রক্ষিত গ্লাস নেগেটিভগুলো স্ক্যানের মাধ্যমে পজিটিভ ব্যবসহা করণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে ।

১৫.

১৮ই এপ্রিল ২০১৭তে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো  World Heritage day পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়  ও আনুষ্ঠানিকভাবে উদযাপন করা হয় ।

 

 


Share with :
Facebook Facebook